জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা টেলি সামাদ না ফেরার দেশে

0
257
জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা টেলি সামাদ

নিউজ ডেস্ক: ঢালিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা টেলি সামাদ না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন ৬ এপ্রিল। রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে শনিবার বেলা ১টা ৩০ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। তার মৃত্যুতে চলচ্চিত্র অঙ্গনে পড়েছে শোকের ছায়া।

চলতি বছরের শুরুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) বেশ কিছুদিন ভর্তি ছিলেন। কিছুটা সুস্থ হয়ে সম্প্রতি বাসায় ফিরেন তিনি। সে সময় তিনি ‘স্বাভাবিক জীবনে’ ফিরতে পারবেন কি না, তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন চিকিৎসকরা।এর আগে ২০১৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রে টেলি সামাদের বাইপাস সার্জারি করা হয়। এরপর ২০১৭ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর তিনি কিছুটা সুস্থ হয়ে দেশে ফেরেন। দেশে আসার পর অক্টোবর ও নভেম্বরে দুই দফা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। গত বছরের ২০ অক্টোবর জরুরি অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল তার বাম পায়ের বৃদ্ধাঙ্গুলিতে।

১৯৪৫ সালের ৮ জানুয়ারি তিনি মুন্সিগঞ্জের নওগাঁও এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। টেলিসামাদ পড়াশোনা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগে। ১৯৭৩ সালে ‘কার বউ’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্র জগতে পা রাখেন তিনি। ‘কার বউ’ তার অভিনীত প্রথম ছবি হলেও দর্শকদের কাছে তিনি পরিচিতি পান আমজাদ হোসেনের ‘নয়নমণি’ ছবির মাধ্যমে। সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলে বেড়ে ওঠা টেলিসামাদের সংগীতেও রয়েছে সমান পারদর্শিতা। ‘মনা পাগলা’ছবির সংগীত পরিচালনা করেছেন তিনি। এছাড়া ৫০টিরও বেশি ছবিতে তিনি গানও গেয়েছেন। ৪০ বছরের ক্যারিয়ারে তিনি অভিনয় করেছেন ৬০০টি ছবিতে।

টেলিসামাদের আসল নাম আবদুস সামাদ। বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) ক্যামেরাম্যান মোস্তফা মামুন তার আবদুস সামাদ বাদ দিয়ে টেলিসামাদ নামটা দিয়েছিলেন। সেই থেকে তাকে সবাই টেলিসামাদ নামেই চেনে।

সত্তরের দশক থেকে তাকে পর্দায় দেখেছেন দর্শকরা। এ যাবৎ অসংখ্য চলচ্চিত্র-নাটকে নানা ধরনের চরিত্রে তার দুর্দান্ত অভিনয় দর্শকের মনে দাগ কেটে আছে দারুণভাবে। নিজের অভিনয় শৈলি দিয়ে দর্শকদের বিনোদন ও হাসিতে সারাক্ষণ মাতিয়ে রাখতেন টেলিসামাদ। একসময় কমেডিয়ান বললেই চলে আসত তার নাম। সমানতালে অভিনয় করেছেন সিনেমায়, টেলিভিশনে। পেয়েছেন তুমুল জনপ্রিয়তা।

চল্লিশ বছর ধরে যিনি সবাইকে হাসিয়েছেন, জীবন সায়াহ্নে এসে অভাব, জরা, ক্লান্তি আর একাকীত্ব মিলিয়ে দারুন অবসাদগ্রস্থ সেই কৌতুক সম্রাটের মুখের হাসিই নিভে গেছে। ২০১৫ সালে তার অভিনীত সর্বশেষ ছবি ‘জিরো ডিগ্রী’ মুক্তি পায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here