জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস উদ্‌যাপন উৎসব এর ২দিনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা “বজ্র আঁটুনি ফসকা গেরো !”

0
669

আহমেদ সাব্বির রোমিও: এফডিসিতে শুরু হওয়া দুইদিনব্যাপি ‘জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস ২০১৯’ শীর্ষক উৎসব শেষ হোলো গতকাল বৃহস্পতিবার । গত দুইদিন কঠোর নিরাপত্তা বলয় তৈরি করা হয়েছিল এফডিসির প্রধান প্রবেশ দরজায় । রীতিমত কার্ড পাঞ্ছ করে প্রবেশ করতে হয়েছে আমন্ত্রিত অতিথিদের। এফডিসির নিজস্ব নিরাপত্তা কর্মী , পুলিশ প্রশাসন ছাড়াও নিয়োজিত ছিলো প্রাইভেট নিরাপত্তা কর্মীরা । কিন্তু গতকাল , কেপিআই এলাকাতে প্রবেশ দারে ছিলোনা কোন মেটাল ডিক্টেটর ! এমন কি মেনুয়াল কোন ডিক্টেটর ও চোখে পরে নাই কোন নিরাপরতা কর্মীর হাতে । অনেক দর্শক ব্যাগ হাতে করে ভিতরে ঢুকেছেন । একটি বারের জন্যও ব্যাগ গুলকে খুলে চেক করা হয়নি ।

গতকাল বিকালে চলচ্চিত্র পরিচালক রাকিবুল ইসলাম রাকিব ও চলচ্চিত্র পরিচালক শাহ্‌ আলম মণ্ডল এফডিসির প্রধান প্রবেশ দরজায় বাধা প্রাপ্ত হন প্রাইভেট নিরাপত্তা কর্মীদের কাছে। নিজেদের পরিচয় দেবার পরও প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয় তাদের । ফাইট ডিরেক্টর চুন্নু মামা ও আমির সিরাজি এসে দুই পরিচালককে সসন্মানে ভিতরে নিয়ে আসেন। দ্বিতীয় দফায় মুল অনুষ্ঠানে্র প্রবেশ পথেও প্রাইভেট নিরাপত্তা কর্মীদের ” বাউন্সারদের ” বাঁধার কবলে পরেন এফডিসির নিয়মিত বিট করা বিনোদন প্রতিবেদক দৈনিক “আলকিত সময়” পত্রিকার সাংবাদিক রঞ্জু সরকার । বাদ যাননি চিত্র নায়িকা তানিন সুবাহ ও ! সে সময় তানিন বার বার বলছিলেন,” আমি খালি অভিনেত্রী না ,আমি কিন্তু শিল্পী সমিতির সদস্য ” পরবর্তীতে সাংবাদিক রঙ্গু সরকার ও চিত্র নায়িকা তানিন রাগ করে অনুষ্ঠান স্থান ত্যাগ করেন । বৃহস্পতিবারের ঘটনা নিয়ে নৃত্যপরিচালক হাবিব সাংবাদিকদের বলেন , ‘অনুষ্ঠানের প্রয়োজনে আমি যখন স্টেজের সামনে যাচ্ছিলাম, তখন ইভেন্টের লোক আমাকে বাধা দেয়, আমি আমার পরিচয় দেওয়ার পরও তারা আমাকে ভেতরে ঢুকতে দেয়নি।একপর্যায়ে ধাক্কা দিয়ে বের করে দেয়, এমন ঘটনা দেখে আমাদের নাচের ছেলেদের সঙ্গে ইভেন্ট সিকিউরিটিদের হাতাহাতি হয়।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির যুগ্ম মহাসচিব শাহিন সুমন সাংবাদিকদের বলেন, ‘এই বছর পুরো অনুষ্ঠানটি রাউন্ড দ্য ক্লক নামে এক ইভেন্ট কোম্পানি করেছে। আমি এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাই না।’

এদিকে মঞ্চের সামনে কম জায়গা থাকায় অনেকেই অনুষ্ঠান দেখতে পারেননি। এতে তাঁরা হতাশা প্রকাশ করেন। বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে চাইলে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির কেউ কথা বলতে রাজি হয়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন আয়োজক সাংবাদিকদের বলেন, অনুষ্ঠানে আসন সংখ্যার অতিরিক্ত কার্ড বিলির জন্যই এই সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে । দেখা গেছে সাংবাদিকদের নিধারিত আসনেও অন্য অতিথিরা জায়গা দখল করে আছেন। অনুষ্ঠানের উপস্থাপক বার বার সাংবাদিকদের নির্ধারিত আসন ছেড়ে দেবার ঘোষণা করার পরোও কোন লাভ হয়নি । প্রিন্ট, অনলাইন, টিভি মিডিয়ার অনেক সাংবাদিকেই দাড়িয়ে অনুষ্ঠানের নিউজ কভার করতে হয়েছে ।

এ আয়োজনের মঙ্গল বার প্রথম দিন হিসেবে এফডিসিতে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ছিল নানা অনুষ্ঠান। ২০১২ সাল থেকে এ দিবসটি জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস হিসেবে উদ্‌যাপিত হয়ে আসছে। এবারের প্রতিপাদ্য বিষয়, ‘চলচ্চিত্র বাঁচলে সংস্কৃতি বাঁচবে’। গতবুধবার উৎসবের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।। উদ্বোধনের সময় তথ্যমন্ত্রীসহ উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র দিবস উদ্‌যাপন কমিটির আহ্বায়ক সৈয়দ হাসান ইমাম, অভিনেতা ড. ইনামুল হক, চিত্রনায়ক আলমগীর, ইলিয়াস কাঞ্চন, খল অভিনেতা মিশা সওদাগর, তথ্যমন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল মালেক, এফডিসির ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক লক্ষণ চন্দ্র দেবনাথ, পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান, চিত্রনায়ক সুব্রত, সম্রাট, চিত্রনায়িকা অঞ্জনা, রোজিনা, শাহনূর, আইরিনসহ আরো অনেকে। উদ্বোধনের পর এফডিসির প্রশাসনিক ভবনের পাশে মূল মঞ্চে অতিথিরা আসন গ্রহণ করেন।

গতকাল দ্বিতীয় দিনে ছিল চলচ্চিত্র ও সংগীত শিল্পীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এবার আয়োজনের মূল স্পন্সর হিসেবে আছে বেক্সিমকো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here