পেঁপের বীজ ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে!

0
329

পেঁপের গুণাবলীর শেষ নেই। কাঁচা বা পাকা পেঁপে স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারী। এই ফলে রয়েছে ভিটামিন এ, ভিটামিন সি এবং ভিটামিন কে। পাশাপাশি রয়েছে পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, প্রোটিন ক্যারোটিন এবং প্রাকৃতিক আঁশ।

কিন্তু শুধু পেঁপেতেই নয়, এর বীজেও রয়েছে অনেক গুণ। পেঁপের বীজ ফেনোয়েলিক এবং ফ্লেবোনয়েড উপাদানে ভরপুর। এতে রয়েছে প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম ও ফসফরাস। তবে এটা শুধু শুধু খাওয়া ঠিক নয়। বেশি পরিমাণেও খাওয়া উচিত নয়। বরং অন্য কোন খাবারের সঙ্গে যদি অল্প পরিমাণে এটি খাওয়া যায় তাহলে তা স্বাস্থ্য সুরক্ষায় কাজে লাগে।

আসুন জেনে নেই কেন পেঁপের বীজ খাবেন…

১. কাঁচা পেঁপের মতো এর বীজেও প্রচুর পরিমাণে প্রোটিওলাইটিক এনজাইম প্যাপাইন থাকে। এতে শরীর থেকে বিভিন্ন রোগ জীবানু দূর হয়।
২. দীর্ঘদিন ধরে অতিরিক্ত মাদক সেবনের কারণে সাধারণত লিভার সিরোসিস হয়।এই রোগ হলে লিভার শরীর থেকে টক্সিন বের করতে পারে না। পেঁপের বীজ লিভার সিরোসিস রোগের জন্য প্রাকৃতিক প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করে।সেই সঙ্গে লিভারকে ডিটক্সিফিকেশনের মাধ্যমে সুস্থ রাখতে ভূমিকা রাখে।
৩. পেঁপের বীজে শক্তিশালী অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি উপাদান থাকে যা হজমশক্তি ঠিক রাখে। গবেষণায় দেখা গেছে, পেঁপের বীজে থাকা নানা উপকারী উপাদান ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে সাহায্য করে।
ফুড পয়জনিং হলে খাওয়ার রুচি কমে যায়। এসময় অল্প পরিমাণ খাবারের সঙ্গে যদি পেঁপের বীজ পিষে তিনবার করে খাওয়া যায় তাহলে উপকার পাবেন।
৪. গবেষনায় দেখা গেছে, কিডনি ও হৃদরোগের জন্য পেঁপের বীজ বেশ উপকারী।
৫. পেঁপের মতো পেঁপের বীজও কোষ্টকাঠিন্য সারাতে সহায়তা করে।
৬. বিভিন্ন গবেষণায় দেখা যায়, ভাইরাল সংক্রমণ যেমন- ডেঙ্গু জ্বর সারাতে পেঁপের বীজ বেশ কার্যকরী।
৭. দেহের ত্বক মসৃণ ও সতেজ রাখতে পেঁপে ও পেঁপের বীজ খুব উপকারী। ত্বক উজ্জ্বল করতেও এটি সাহায্য করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here