মরণোত্তর চক্ষুদান করেছেন তারা

0
475

 সৈয়দ হাসান ইমাম-লায়লা হাসান দম্পতি এবং আজমেরী হক বাঁধন তিনজনই মরণোত্তর চক্ষু দান করেছেন। সন্ধানী জাতীয় চক্ষুদান সমিতির তত্ত্বাবধানে তারা চক্ষুদান করবেন।

হাসান ইমাম বলেন, ‘আমার কর্নিয়া সংযোজনে একজন অন্ধ মানুষ আলো দেখতে পাবে, এটা অনেক ভালো লাগার অনুভূতি। এমন একটি মহৎ কাজে অংশীদার হতে পেরেছি বলে গর্ব হচ্ছে। অন্যদেরও এগিয়ে আসা দরকার।’

তিনি বলেন, “আমরা সবাই চাই, আমাদের কাজের মাধ্যমে মানুষের মাঝে বছরের পর বছর বেঁচে থাকবে। আর যদি কোনো অঙ্গ দিয়ে যাই সেটা দিয়ে পৃথিবীর মানুষ বছরের বছর দেখবে-সেটার চাইতে তো আর বড় কিছু দানের নাই। মারা যাওয়ার পর সন্ধানীর ডাক্তাররা তার চোখের কর্ণিয়া সংরক্ষণ করবেন; যেটি অন্ধ মানুষ পৃথিবীর আলো দেখতে পারবে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here