৩ মে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস ২০২৩ পালন

0
175

মোহাম্মদ মাহবুব উদ্দিন: গতকাল ৩রা মে রোজ বুধবার সারাদিন ব্যাপী মিরপুর প্রেসক্লাব বিশ্ব গণমাধ্যম দিবস পালন করেছে।

বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়, ১২ টায় জাতীয় প্রেস কাউন্সিলের সামনে সমাবেশ এবং প্রেস কাউন্সিল মিলনায়তনে সেমিনার ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এই অনুষ্ঠান সমূহে অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মিরপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ আমিনুল ইসলাম রিপন , সহ-সভাপতি এস.এ.এম সুমন , সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মাহবুব উদ্দিন , রুরাল জার্নালিস্ট ফাউন্ডেশন এর চেয়ারম্যান এস এম জহিরুল ইসলাম , ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মোঃ আল আমিন শাওন। জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেন , ঢাকা মহানগর প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক মোঃ দিদারুল ইসলাম ছাড়াও সিনিয়র সাংবাদিক ও নেতৃবৃন্দ।

এই অনুষ্ঠানের মূল প্রতিপাদ্য ছিল ” মত প্রকাশের স্বাধীনতা সকল প্রকার মানবাধিকারের চালিকাশক্তি ” সবশেষে জাতীয় প্রেস কাউন্সিল মিলনায়তনে সেমিনার ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয় অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মোঃ নিজামুল হক নাসিম সম্মানিত অতিথিবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল এর সদস্য ডঃ উৎপল কুমার সরকার ও সিনিয়র সাংবাদিক মনজুরুল আহসান বুলবুল।

মতপ্রকাশের স্বাধীনতা সকল
প্রকার মানবাধিকারের চালিকাশক্তি।
গণমাধ্যমে স্বাধীনতা চাই।
একি কথা সকল সাংবাদিক নেতাদের মুখে।

দেশের একজন সাংবাদিককে এক নিরন্তর লড়াইয়ের ভেতর দিয়ে তার দিন/ মাস/ বছর পার করতে হয়। এ লড়াই নিজের সঙ্গে, সঠিক সাংবাদিকতা সে করতে পারছে কিনা, লড়াই সহকর্মীদের সঙ্গে, লড়াই মালিকের ব্যবসায়িক ও রাজনৈতিক স্বার্থের সঙ্গে, লড়াই রাষ্ট্রযন্ত্রের সঙ্গে, এমনকি নিজের সাংবাদিক ইউনিয়নের সঙ্গে। প্রতিটি স্তরে তাকে বুঝে নিতে হয় কত কঠিন তার এই পেশা। রাষ্ট্র এবং রাজনীতির চাপ, করপোরেটের চাপ, সমাজের কট্টর মতামত, আইন ও প্রশাসনের অপব্যবহার, মিডিয়ার আপস—মত প্রকাশের স্বাধীনতার সামনে বিস্তর বাধা। সাংবাদিকদের মামলা দিয়ে হয়রানি করা খুব সাধারণ একটা ব্যাপার এখানে। মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলার পেছনে গুরুত্বপূর্ণ অনেক সময় ব্যয় করতে হয় সম্পাদক ও সাংবাদিকদের। যারা নিজেদের উদ্যোগে সাংবাদিকতা করেন, তাদের ক্ষেত্রে এই বিপদ অতি প্রবল। বিশেষত দূরবর্তী অঞ্চলগুলোতে, তথাকথিত ‘জাতীয়’ সংবাদমাধ্যমের নাগাল ও নজর থেকে তারা অনেক দূরে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here