বিশিষ্ট মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, সাংবাদিক ও সিনেমাটোগ্রাফার মিশুক মুনীরের ব্যবহৃত ক্যামেরা ও বিভিন্ন যন্ত্রপাতি বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভে হস্তান্তর

0
49

মোহাম্মদ মাহবুব উদ্দিন :
১৮ ডিসেম্বর ২০২৩
বিশিষ্ট মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, সাংবাদিক ও সিনেমাটোগ্রাফার মিশুক মুনীরের স্ত্রী মঞ্জুলী মুনীর তাঁর সংগ্রহে থাকা মিশুক মুনীরের ব্যবহৃত বিভিন্ন দ্রব্যাদি ও দলিলাদি আজ ১৮ ডিসেম্বর ২০২৩ বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভের মহাপরিচালকের নিকট ফিল্ম মিউজিয়ামে সংরক্ষণের জন্য প্রদান করেন। তিনি মিশুক মুনীরের ব্যবহৃত ক্যামেরা, বিভিন্ন ধরনের লেন্স, ফ্ল্যাশগান, এসেসোরিজ, ওহম মিটার, স্লাইড, ফটো অ্যালবাম, ক্যামেরার ম্যাগনেটিক, মিনি ক্যামেরা, ছোট ব্যাটারি চালিত লাইট, পার্সপোর্ট, আইডি কার্ড, দূর্লভ পকেট ঘড়ি, হাত ঘড়ি, নেগেটিভ রাখার কাঁচের জার ইত্যাদি বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভের মিউজিয়ামের জন্য দান করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পরিচালক ফারহানা রহমান, উপ-পরিচালক মুহাম্মদ আরিফ সাদেক, ফিল্ম অফিসার মোঃ ফখরুল আলম সোহাগ ও ফিল্ম ইনভেস্টিগেটর আবুল কাউসার মোঃ আল আমিন।

মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, সাংবাদিক ও সিনেমাটোগ্রাফার মিশুক মুনীর, শহীদ বুদ্ধিজীবি মুনীর চৌধুরীর ছেলে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা শুরু করেন। এরপর ১৯৯৮ সালে সাংবাদিকতায় যুক্ত হন। বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি উদ্যোগে টেলেস্টোরিয়াল ও স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল একুশে টিভির প্রধান বার্তা এবং এটিএন নিউজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। দেশের গন্ডি ছাপিয়ে বিদেশেও সাংবাদিক, সম্প্রচার প্রধান হিসেবে দীর্ঘদিন কাজ করেন। ২০০৭ সালে কানাডিয়ান সাংবাদিক পল জোয়ের সাথে প্রতিষ্ঠা করেন

আন্তর্জাতিক সংবাদ টেলিভিশন রিয়েল নিউজ নেটওয়ার্ক। কানাডার টরেন্টোর ব্রেকথ্রো ফিল্মস, জে ফিল্মস ইত্যাদি প্রতিষ্ঠানে ফিল্যান্স ভিডিওগ্রাহক ও প্রযোজক হিসেবে কাজ করেন। এ ছাড়াও তিনি কাজ করেন বিবিসির ভিডিওগ্রাহক হিসেবে। নির্মাণ করেন বিভিন্ন ধরনের প্রামাণ্যচিত্র, তথ্যচিত্র ও চলচ্চিত্র। এর মধ্যে রির্টান টু কান্দাহার, রানওয়ে, মাটির ময়না, মুক্তির গান উল্লেখযোগ্য। তিনি বাংলাদেশের স্যাটেলাইট টেলিভিশনের অন্যতম এক ব্যক্তিত্ব ছিলেন। বাংলাদেশের এই অনন্য প্রতিভা তারেক মাসুদের পরিচালনায় নতুন ‘কাগজের ফুল’ চলচ্চিত্রের শ্যুটিং লোকেশন দেখতে গিয়ে মানিকগঞ্জের ঘিওরে ২০১১ সালের ১৩ আগস্ট এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here